সর্বশেষ

যেভাবে ধরা পড়লো শাহনাজের স্কুটি চোর

যেভাবে ধরা পড়লো শাহনাজের স্কুটি চোর

রাইড শেয়ারিং অ্যাপ উবারের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করা শাহনাজ আক্তার পুতুলের চুরি হওয়া স্কুটিটি উদ্ধার করা হয়েছে। ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের একটি দল মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ৩টার দিকে অভিযান চালিয়ে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার রঘুনাথপুর এলাকা থেকে স্কুটিটি উদ্ধার করে। এর আগে মোবাইলফোন ট্র্যাকিং এর মাধ্যমে লোকেশন নিশ্চিত হয়ে প্রথমে সেই প্রতারক জনিকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর উদ্ধার করা হয় শাহনাজের স্কুটিটি।

ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, শাহনাজ একটি সংগ্রামী নাম। নিজের পরিবার চালাতে গিয়ে উবারের বাইক চালানো শুরু করেন শাহনাজ। এজন্য তাকে নিয়ে গণমাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ আলোচনা হয়।

তিনি আরো বলেন, এরই মধ্যে গতকাল প্রতারণার ফাঁদে পড়ে স্কুটিটি খোয়ান শাহনাজ। যা আরও বেশি চাঞ্চল্য ছড়ায় ও মানুষ সমালোচনা করতে থাকেন। পাশাপাশি পুলিশের ওপর স্কুটিটি উদ্ধারের প্রত্যাশাও বেড়ে যায়। আমরাও খুব গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করে অভিযান চালিয়ে স্কুটিটি উদ্ধার ও প্রতারককে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়েছি।

বিপ্লব কুমার বলেন, এ ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন শাহনাজ। মামলা নং-১৪। জিডিটি পরে মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হয়। এ মামলার তদন্ত ও অভিযানের সমন্বয় করেন তেজগাঁও জোনের সহকারী কমিশনার আবু তৈয়ব মো. আরিফ হোসেন।

রাতেই আরিফের নেতৃত্বে একটি চৌকস দল অভিযানে নামে। প্রথমে ভুক্তভোগী শাহনাজ কর্তৃক জনির উল্লেখিত মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করা হয়। সেটি বন্ধ পাওয়া গেলে কললিস্টের অন্য মোবাইল নম্বরের মাধ্যমে লোকেশন জানার চেষ্টা করা হয়। প্রাথমিকভাবে জনির সর্বশেষ লোকেশন দেখায় নারায়ণগঞ্জ। এরপর সেখানে আমাদের টিম চলে যায়। এর মধ্যে সর্বশেষ লোকেশন চিহ্নিত করে রাত ৩টার দিকে জনিকে নারায়ণগঞ্জের রঘুনাথপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে একই এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয় ভুক্তভোগী শাহনাজের স্কুটি।

এ ব্যাপারে অভিযানে নেতৃত্বদানকারী তেজগাঁও জোনের সহকারী কমিশনার আবু তৈয়ব মো. আরিফ হোসেন জানান, প্রতারক চালক রাতেই স্কুটিটি নিয়ে ঢাকা ছাড়ে। তবে তথ্যপ্রযুক্তিগত সহায়তায় আমরা তার লোকেশন নিশ্চিত হয়ে নারায়ণগঞ্জে অভিযানে যাই এবং রঘুনাথপুর থেকে জনিসহ স্কুটিটি উদ্ধার করি।

তিনি আরো বলেন, চুরি হওয়া স্কুটি ও জনিকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে শেরেবাংলা নগর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*