সর্বশেষ

‘কারাগার নিয়ে দুদকের কাজ করার সময় হয়ে এসেছে’

‘কারাগার নিয়ে দুদকের কাজ করার সময় হয়ে এসেছে’


কারাগার থেকে বেরিয়েই এর অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে অভিযোগ করেছেন নুরুল আজিম রনি। জামিন পাওয়ার একদিন পর তিনি তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেন, পুরোনো কয়েদিদের মতে, জেল খানার অভ্যন্তরীণ পরিবেশ আগের চেয়ে বর্তমানে অনেক ভালো। যদিও চট্টগ্রাম কারাগারে বর্তমানে আগের চেয়ে অনেক বেশি মানুষ অবস্থান করছে। গাধাগাধি করে থাকতে হচ্ছে মানুষকে। স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি লোকসংখ্যা এখন চট্টগ্রাম কারাগারে। যে বিষয়ে আসামি/কয়েদিদের অসন্তোষ দেখেছি তা হচ্ছে, খাবার ও খাবারের মান। আসামী/কয়েদিদের অভিযোগ, সরকারের নির্ধারিত বরাদ্দকৃত খাবার তাদের কাছে পৌঁছেনা।

কিশোর সেলে (শেখ রাসেল ওয়ার্ড) গেলে আতকে উঠতে হবে যে কাউকে। রাষ্ট্রের কিশোর অপরাধীদের সংখ্যা ও তাদের ভয়াবহতা কত মাত্রাতিরিক্ত তা বুঝতে একটুও কষ্ট হবেনা যে কারো। কিশোর অপরাধীদের ৮০ ভাগ মাদকাসক্ত। ছিঁচকে সন্ত্রাসী, চুরি, ছিনতাই ও মাদক মামলার নিয়মিত কিশোর আসামিগুলোর সাথে দুই একজন ভালো পরিবারের ইনোসেন্ট ছেলেও দেখতে পাবেন সেখানে। এমন কয়েকজনের সাথে কথা বলে বুঝলাম, তাদের কিশোর অপরাধীদের সেলে রাখাটা মোটেও উচিত হচ্ছে না।

আমাদের হয়তো আরো কিছু করার আছে। রাষ্ট্র সবক্ষেত্রে আমাদের দাবী দাওয়া যথাসাধ্য পূরণ করে যাচ্ছে। দুর্নীতির গ্রাস থেকে কারগারগুলোকে মুক্ত করা উচিত। অপরাধীদের শুধু শাস্তি দিলে হবেনা, তাদের সংশোধন করার সুযোগও তৈরি করে দিতে হবে।

কারাগার নিয়ে দুদকের কাজ করার সময় হয়ে এসেছে।

নুরুল আজিম রনির ফেসবুক থেকেঃ

(Visited 1 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Research Publishing Academy in the UK
Research Publishing Academy in the UK